রাহিঙ্গাদের বঞ্চিত করতেই ত্রাণ কার্যক্রমে বাধা দিয়েছে সরকার : রহুল কবির রিজভী

76

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রহুল কবির রিজভী বলেছেন, মায়ানমার সেনাবাহিনী যখন মুসলিম রহিঙ্গাদের উপর নির্যাতন ও গণহত্যা চালাচ্ছে তখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কোন প্রতিবাদ করছেন না। কক্সবাজারে আশ্রয় নেওয়া অসহায় রহিঙ্গাদের জন্য যখন বিএনপির উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণে যাওয়া হচ্ছিল তখন পুলিশ দিয়ে অবরোধ করা হয়েছে। অসহায় রাহিঙ্গাদের বঞ্চিত করতেই ত্রাণ কার্যক্রমে বাধা দিয়েছে সরকার। শুক্রবার বিকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার আমনুরা স্কুল মাঠে ঝিলিম ইউনিয়ন বিএনপি আয়োজিত এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
রোহিঙ্গাদের রক্তের উপর দিয়ে খাদ্যমন্ত্রীকে চাল আনতে মিয়ানমার পাঠিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করে সমাবেশে রুহুল কবির রিজভী আরও বলেন, বৃহস্পতিবার রাজশাহীর জনসভায় প্রধানমন্ত্রী উন্নয়নের নামে মিথ্যাচার করেছেন। গত ৮ বছরে দেশে কোন উন্নয়ন হয়নি। এই সময় দেশে খুন, গুম ও বিচার বহির্ভূত হত্যাকা-ের উন্নয়ন হয়েছে। তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী মিয়ানমারের উপর চাপ প্রয়োগ করে কোন বক্তব্য রাখেন নি। আর রোহিঙ্গা ইস্যু থেকে জনগণের দৃষ্টি এড়াতে এখন আওয়ামী লীগ নেতারা খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছে। সব শেষে তিনি আগামী জাতীয় নির্বাচনে হারুনুর রশীদের পাশে থাকার জন্য দলীয় নেতা কর্মীদের প্রতিনি আহবান জানান।
সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হারুনুর রশীদ হারুন বলেন-আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে ফাঁকা মাঠে গোল দিতে হবে না। জাময়াত প্রসঙ্গে তিনি বলেন-১৯৯৬ থেকে বিএনপি-জামায়াত জোটের রাজনীতি করলেও চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরে একক ভোট করেছে জামায়াত। তিনি বলেন- জামায়াত-শিবিরের নেতা-কর্মীদের বাঁচাতে হলে আগামী নির্বাচনে ধানের শীষে ভোট দিতে হবে এবং খালেদা জিয়াকেই প্রধান মন্ত্রী করতে হবে। এ জন্য নেতা-কর্মীদের প্রস্তুত থাকার আহবান জানান তিনি। এ সময় তিনি বলেন-২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির পর আমনুরার এই জনসভাই হচ্ছে রাজশাহী অঞ্চলে প্রথম উন্মুক্ত জনসমাবেশ।
জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দা আসিফা আশরাফি পাপিয়া জামায়াতের কঠোর সমালোচনা করে সমাবেশে অংশগ্রহণকারী নারীদের উদ্দেশ্যে বলেছেন-আগামী নির্বাচনে জামায়াতের কথায় ভুল করবেন না, ধানের শীষে হারুনুর রশীদকে ভোট দেবেন।
সদর উপজেরা বিএনপির সভাপতি তসিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হারুনুর রশীদ হারুন। প্রধান বক্তা হিসাবে বক্তব্য দেন, জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দা আসিফা আশরাফি পাপিয়া। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম মতি, গোমস্তাপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ও গোমস্তাপুর উপজেলার বিএনপির সভাপতি বাইরুল ইসলাম, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ময়েজ উদ্দিন, নাচোলের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আবু তাহের খোকন প্রমুখ।

SHARE