পোল্লাডাঙ্গা সীমান্তে বিজিবি-বিএসএফ পতাকা বৈঠক

চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট উপজেলার পোল্লাডাঙ্গা সীমান্তে বুধবার বিজিবি ও বিএসএফের মধ্যে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৫৯ বিজিবির দায়িত্বপ্রাপ্ত এলাকা ওই উপজেলার পোল্লাডাঙ্গা সীমান্তের সীমান্ত পিলার ২০১/৩৮ এর কাছে বাংলাদেশের অভ্যান্তরে বজ্রাটেক নামক স্থানে বেলা ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে বিজিবির ৫ সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন ৫৯ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মো. রাশেদ আলী ও বিএসএফের ৬ সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন ৮২ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের কমান্ড্যান্ট শ্রী অনিল কে আর টিগ্গা । ৫৯ বিজিবির পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
৫৯ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মো. রাশেদ আলী বৈঠকে গত ৪ অক্টোবর ইয়াছিন আলী (৩২) নামে এক বাংলাদেশীকে আটকের পর আদমপুর বিএসএফ ক্যাম্পের সদস্যরা মারধর করে মারাত্মক জখম অবস্থায় সীমান্ত পিলার ২০১/১৩-এস এর কাছে ফেলে রেখে যাওয়ার অভিযোগ করেন ও বিষয়টি অমানবিক এবং একটি জঘন্য আচরণের সামিল যা ভারত-বাংলাদেশ যৌথ নির্দেশাবলী-১৯৭৫ এর পরিপন্থী বলে উল্লেখ করেন। তবে ৮২ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের কমান্ড্যান্ট শ্রী অনিল কে আর টিগ্গা বিষয়টি সম্পূর্ণ অস্বীকার করে বলেন, ঘটনার সাথে আদমপুর বিএসএফ ক্যাম্পের কোন সদস্যের সম্পৃক্ততা ছিল না। তিনি দাবি করেন, রাত্রি বেলায় কোন বিএসএফ সদস্যের সীমান্তের কাটা তারের বেড়া এবং নদী পার হয়ে এ ধরনের কার্যক্রম করা কোনভাবেই সম্ভব নয়। তবে ভবিষ্যতে এ ধরণের ঘটনা পরিহারকল্পে আরও বেশী সতর্কতা অবলম্বনের ব্যাপারে বিজিবি অধিনায়ককে আশ্বাস দেন। এ ছাড়াও বৈঠকে সীমান্তে বসবাসরত নিরীহ জনসাধারনের উপর ভবিষ্যতে অন্যায়ভাবে গুলিবর্ষণ ও নির্যাতন না করা, চোরাচালান ও মাদকদ্রব্য পাচার প্রতিরোধ, অবৈধ অস্ত্র-গোলাবারুদ ও বিস্ফোরক পাচার প্রতিরোধ করা, সীমান্তে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে সমন্বিত টহল পরিচালনার বিষয়ে আলোচনা হয় হয় বিজিবি অধিনায়ক জানান।