ফ্রাঙ্কফুর্টে শুরু বিশ্বের সবচেয়ে বড় বইমেলা

এক শ দেশ থেকে সারা বিশ্বের সাত হাজারের বেশি প্রকাশক আর প্রকাশনা সংক্রান্ত প্রতিষ্ঠানের উপস্থিতিতে শুরু হয়েছে ফ্রাঙ্কফুর্ট বই মেলা। পাঁচ দিন ব্যাপী ঐতিহ্যবাহী এই বই মেলার এটা ৬৯ তম আয়োজন। বই মেলায় এবারের অতিথি দেশ ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এ্যমুনিয়েল ম্যাক্রন ও স্বাগতিক দেশ জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা ম্যার্কেল গত মঙ্গলবার মেলার উদ্বোধন করেছেন। বই মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রন বলেছেন ইউরোপীয় সংস্কৃতি ইউরোপকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। ঐতিহ্যগত ভাবে ফ্রান্স ও জার্মানির মধ্য নানা পার্থক্য যুদ্ধ বিগ্রহ থাকলেও দুই দেশের সাংস্কৃতিক বন্ধন দুই দেশ তথা ইউরোপকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা ম্যার্কেল বলেন, ইউরোপীয় সাহিত্য সংস্কৃতি ইউরোপের মানুষকে আরও ঐক্যবদ্ধ ও সমৃদ্ধ করতে ভূমিকা রাখবে। মেলা কর্তৃপক্ষ বলছেন, আগামি ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত এই মেলায় প্রায় দুই লাখ সত্তর হাজার দর্শনার্থীদের সমাগম হবে, আর এবারের বইমেলার অতিথি দেশ ফ্রান্স থেকে মেলায় যোগ দিতে এসেছেন সেখানকার কবি ও লেখকেরা। ফ্রাঙ্কফুর্টের এই বই মেলা, এখন আর সেই সনাতনী বই মেলা নয়, বই এর পাশাপাশি, ডিজিটাল যুগের ই-বই আর কাগজের বই নিয়ে পাঠকদের ভাবনা, বই ব্যবসার প্রসার গবেষণা, সমস্যা আর তার সমাধান নিয়ে মেলা প্রাঙ্গণে পাঁচ দিনে তিন হাজার সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। মেলায় সারা বিশ্ব থেকে নামকরা লেখকেরা হাজির হবেন। ফ্রাঙ্কফুর্ট বই মেলার প্রাক্কালে অস্ট্রিয়ার লেখক রবার্ট মেনেসা তার উপন্যাস “রাজধানী” লিখে জার্মান সাহিত্য পুরস্কার পেয়েছেন। জার্মান ভাষা সাহিত্য কর্মের জন্য জার্মানির প্রকাশকেরা ২০০৫ সাল থেকে জার্মান সাহিত্য পুরস্কারটি চালু করেছেন। এবার ২০০ উপন্যাস থেকে প্রাথমিক ভাবে বিশটি উপন্যাস বাছাইয়ের পর রবার্ট মেনেসাকে এই পুরস্কার দেওয়া হয়। এবারের বই মেলায় বাংলাদেশের আগামি প্রকাশনী ও কলকাতা আনন্দ পাবলিশার্স অংশ নিচ্ছে।

 

 

SHARE