অনুমোদন পেয়েছে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ও ওয়ানডে লিগ

25

আলোচিত টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ও ওয়ানডে লিগ আলোর মুখ দেখার বাস্তব সম্ভাবনা অবশেষে সৃষ্টি হয়েছে। অকল্যান্ডে শুক্রবার আইসিসি সভার শেষ দিনে টুর্নামেন্ট দুটি চালু করার নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে। টুর্নামেন্টের পয়েন্ট পদ্ধতি ও প্রতি সপ্তাহ ধরে ভবিষ্যত সূচি এখনও চূড়ান্ত হয়নি। তবে ঠিক হয়েছে প্রথম টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হবে ২০১৯ বিশ্বকাপের পর। অংশ নেবে শীর্ষ নয়টি টেস্ট খেলুড়ে দেশ। ফাইনাল হবে ২০২১ সালের এপ্রিলের মধ্যে। অংশগ্রহণকারী প্রতিটি দেশ এই সময়ে ছয়টি টেস্ট সিরিজ খেলবে যার তিনটি দেশের মাটিতে ও তিনটি বাইরে। প্রতিটি সিরিজ হবে অন্তত দুই টেস্টের। সর্বোচ্চ ৫টি টেস্ট থাকতে পারবে এক সিরিজে। ওয়ানডে লিগ শুরু হবে ২০২০-২১ মৌসুম থেকে। দুই বছরব্যাপী টুর্নামেন্ট চলবে ২০২৩ বিশ্বকাপের আগ পর্যন্ত। ওয়ানডে লিগ তখন বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব হিসেবেও বিবেচনা করা হবে। ২০২৩ বিশ্বকাপের পর ওয়ানডে লিগ হয়ে যাবে তিন বছর মেয়াদী। প্রথম ওয়ানডে লিগে অংশ নেবে ১৩টি দল। ১২টি টেস্ট খেলুড়ে দেশের সঙ্গে অংশ নেবে চলতি আইসিসি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট লিগের বিজয়ী দল। প্রতিটি দল এই সময়ে খেলবে আটটি করে সিরিজ। প্রতিটি সিরিজ হবে তিন ম্যাচের। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচগুলো ৫ দিনেরই হবে। তবে ২০১৯ সাল পর্যন্ত পরীক্ষামূলকভাবে চারদিনের টেস্টেরও অনুমোদন দিয়েছে আইসিসি। মূলত দক্ষিণ আফ্রিকার আবেদনের প্রেক্ষিতেই এই সিদ্ধান্ত। এই বছরই ‘বক্সিং ডে’ টেস্টে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে চারদিনের টেস্ট খেলতে চায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

 

 

SHARE