ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন : চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলায় ১৩ ইউনিয়নে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ চেয়ারম্যান পদে ৫৪ জন, সংরক্ষিত ১৬২ জন, সাধারণ ৪৫৯ জন প্রার্থী

123

Capture
আগামী ২৩ এপ্রিল জমে উঠেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর ও নাচোল উপজেলার ১৭টি ইউনিয়নে নির্বাচন। প্রতীক বরাদ্দের আগেই অনেক প্রার্থী পোস্টার ও লিফলেট তৈরী করে রেখেছিলেন। গতকাল বৃহস্পতিবার প্রতীক বরাদ্দ পাবার পরই সেইসব প্রার্থীদের কর্মীরা পোস্টার টানানোর কাজে ব্যবস্ত হয়ে পড়েছেন। প্রার্থীরাও রাতের ঘুম হারাম করে ভোটারদের দ্বারস্থ হচ্ছেন।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও ৩ টি ইউনিয়নের রির্টানিং অফিসার মো. সাইফুল ইসলাম জানান, নির্বাচন কমিশন থেকে ঘোষিত তপসীল অনুযায়ী সদর উপজেলার ১৩ টি ইউনিয়নে চেযারম্যান, সংরক্ষিত ওয়ার্ড ও সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদপ্রার্থীদের মাঝে গতকাল বৃহস্পতিবার প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। বারঘরিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের হারুণ অর রশিদ (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী আসলাম উদ্দিন (আনারস), আবুল খায়ের (ঘোড়া) ও প্রদীপ কুমার পাল (মোটরসাইকেল) প্রতীক পেয়েছেন। এই ইউনিয়ন সংরক্ষিত আসনে ১৫ জন এবং সাধারণ আসনে ৪২জন প্রার্থীর মধ্যেও প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। অপর দিকে মহারাজপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের এজাবুল হক বুলি (নৌকা), জাতীয় পার্টির নজরুল ইসলাম সোনা (লাঙ্গল), স্বতন্ত্র প্রার্থী জোনাব আলী (মোটরসাইকেল) ও মো. সালাম (আনারস) প্রতীক পেয়েছেন। সংরক্ষিত আসনে ১৩ জস ও সাধারণ আসনে ৩৬ জনের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়। রানীহাটি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মহসিন আলী (নৌকা), বিএনপির রহমত আলী (ধানের শীষ). বর্তমান চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র প্রার্থী দুরুল হোদা (ঘোড়া), স্বতন্ত্র প্রার্থী হাবিবুর রহমান (মোটরসাইকেল) প্রতীক পেয়েছেন। সংরক্ষিত আসনে ১২ জন এবং সাধারণ আসনে ৩৭জনের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়।
সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ও সুন্দরপু, নারায়নপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে রির্টানিং অফিসার ড. এম আজিজুর রহমান জানান, নারায়নপুর ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের আলমগীর কবির আলম (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী কামাল উদ্দীন হোদা (ঘোড়া), স্বতন্ত্র প্রার্থী সেলিম রেজা (আনারস), শরিউতুল্লাহ (চশমা) প্রতীক পেয়েছেন। এই ইউনিয়নে সংরক্ষিত আসনে ১৬ জন এবং সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদে ৪৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেছেন। অপর দিকে সুন্দরপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আ.লীগের হাবিবুর রহমান (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী আমানুল্লাহ বিশ্বাস বাবু (আনারস), স্বতন্ত্র প্রার্থী হযরত আলী (চশমা) রফিকুল ইসলাম (অটোরিকশা), ইখতিয়ার উদ্দিন (মোটরসাইকেল) প্রতীক পেয়েছেন। এ ছাড়া সংরক্ষিত আসনে ১৪ জন এবং সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদে ৩৭ জন বিভিন্ন প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।
সদর উপজেলা প্রার্থমিক শিক্ষা অফিসার ও বালিয়াডাঙ্গা, গোবরাতলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের রির্টানিং অফিসার শামীম আহমেদ খান জানান, বালিয়াডাঙ্গা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মো. তরিকুল ইসলাম (নৌকা) বিএনপির আবু হেনা মোহাম্মদ আতাউল হক (ধানেরশীষ) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী একরামুল হক (মোটরসাইকেল) প্রতীককে লড়বেন। এছাড়া ৩ টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১৭ জন এবং সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদে ৩৫ জন প্রার্থী বিভিন্ন প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। অপর দিকে গোবরাতলা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের আসজাদুর রহমান মান্নু (নৌকা), বিএনপির রবিউল ইসলাম (ধানেরশীষ), স্বতন্ত্র প্রার্থী সাদিকুল ইসলাম (মোটরসাইকেল) এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ শাহজামাল (আনারস) প্রতীক পেয়েছেন। সংরক্ষিত আসনে ১১ জন এবং সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদে ৩১ প্রার্থী বিভিন্ন প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।
সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা এবং দেবীনগর ও ইসলামপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের রির্টানিং অফিসার ড. কবীর উদ্দিন আহমেদ জানান, দেবীনগর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের হাফিজুর রহমান (নৌকা), বিএনপির আ.ক.ম সাহেদুল আলম বিশ্বাস (ধানেরশীষ), স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল জাব্বার মোটরসাইকেল) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক (আনারস) প্রতীক পেয়েছেন। এ ছাড়া সংরক্ষিত ওয়ার্ড সদস্য ১১ জন এবং সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদে ৩৩ জন প্রার্থী বিভিন্ন প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। তিনি জানান, ইসলামপুর ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান পদে, আওয়ামী লীগের জসিম উদ্দীন (নৌকা), বিএনপিরি মোহুরুল হক (ধানেরশীষ),স্বতন্ত্র প্রার্থী আকতারুজ্জামান (মোটরসাইকেল) প্রতীক পেয়েছেন। এ ছাড়া সংরক্ষিত আসনে ১৫ জন এবং সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদে ৪১ জন প্রার্থী বিভিন্ন প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।
সদর উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা ও শাহজাহানপুর ও চরবাগডাঙ্গা নির্বাচনে রির্টানিং অফিসার মাসুদ রানা জানান, শাহজাহানপুর ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান পদে আ.লীগের আব্দুস সালাম(নৌকা), বিএনপির আব্দুল মালেক (ধানেরশীষ) স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুর রশিদ(আনারস), সাবের আলী (চশমা), মোসা. ফাতেমা (মোটরসাইকেল) প্রতীক পেয়েছেন। এছাড়া সংরক্ষিত আসনে ১২ জন এবং সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদে ৩৩ জন প্রার্থী বিভিন্ন প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। তিনি জানান, চরবাগডাঙ্গা ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের ওমর আলী (নৌকা) বিএনপির আমিনুল ইসলাম (ধানেরশীষ), জাসদের কামরুল হোদা (মশাল), স্বতন্ত্র প্রার্থী শহীদ রানা টিপু (মোটরসাইকেল), শাহাবুল আলম কালু (আনারস), রফিকুল ইসলাম বুলবুল (চশমা) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবেন। এ ছাড়া সংরক্ষিত আসনে ১০ জন এবং সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদে ২৭ জন প্রার্থী বিভিন্ন প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।
সদর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ও ঝিলিম. চরঅনুপনগর ইউনিয়ন পরিষদের রির্টানিং কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক জানান, ঝিলিম ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের লুৎফুল হাসান টুটুল (নৌকা) বিএনপির তসিকুল ইসলাম(ধানেরশীষ), শিরিণ আকতার (মোটরসাইকেল) ও সাইফুল ইসলাম (আনারস) প্রতীক পেয়েছেন। এ ছাড়া সংরক্ষিত আসনে ৮ জন এবং সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদে ৪২ জন প্রার্থী বিভিন্ন প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। তিনি জানান, চরঅনুপনগর ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের সাদেকুল ইসলাম বাচ্চু (নৌকা), বিএনপির জহিরুল হক বিশ্বাস (ধানেরশীষ), স্বতন্ত্র প্রার্থী এস আব্দুল বাদী বাদশা (আনারস), তজিমুল হক (মোটরসাইকেল) প্রতীক পেয়েছেন। এ ছাড়া এই ইউনিয়নে সংরক্ষিত ওয়ার্ড সদস্য পদে ৮ জন ও সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদে ২১ জন প্রার্থী বিভিন্ন প্রতীক পেয়েছেন।
আগামী ২৩ এপ্রিল ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

 

SHARE